সহজ করে কিছু শেখা

রম্বস কাকে বলে

এই টিউটোরিয়ালটি শেষে -

রম্বস কাকে বলে - তা ব্যাখ্যা করতে পারা যাবে।

রম্বস কাকে বলে চিত্র সহ বর্ণনা করতে পারা যাবে।

বিভিন্নভাবে রম্বসের সংজ্ঞা প্রদান করতে পারা যাবে।



রম্বস

যে চতুর্ভুজের চারটি বাহুর দৈর্ঘ্য পরস্পর সমান তাকে রম্বস বলে। অন্যভাবে বললে, যে চতুর্ভুজের সব বাহুর দৈর্ঘ্য সমান কিন্তু কোণগুলো সমকোণ নয় তাকে রম্বস বলে।

আরও কয়েকভাবে রম্বস এর সংজ্ঞা দেওয়া যায়। যেমন - সামান্তরিকের সন্নিহিত বাহুদ্বয় পরস্পর সমান হলে তাকে রম্বস বলে। রম্বস হলো বিশেষ ধরণের একটি চতুর্ভুজ যার বাহুগুলোর দৈর্ঘ্য পরস্পর সমান।

দুইটি রম্বসের বাহু, কোণ ও কর্ণদ্বয়ের ছেদবিন্দু চিত্র
দুইটি রম্বসের বাহু, কোণ ও কর্ণদ্বয়ের ছেদবিন্দু চিত্র চিহ্নিত করণ।

রম্বস সম্পর্কে সম্পক জ্ঞান লাভ করতে হলে রম্বস কাকে বলে চিত্র সহ ভালভাবে জানতে হবে। প্রকৃতপক্ষে, রম্বস হলো সামান্তরিকের একটি বিশেষ রূপ অর্থাৎ, সামান্তরিকের সন্নিহিত বাহুদ্বয় সমান হলে তখন তা রম্বস হয়ে যায়।

রম্বসের সবগুলো বাহু যেমন পরস্পর সমান; তেমনিভাবে রম্বসের বিপরীত কোণগুলো পরস্পর সমান। রম্বসের কর্ণদ্বয় পরস্পরকে সমদ্বিখণ্ডিত করে। আবার, রম্বসের কর্ণ দুইটি পরস্পরকে সমকোণে ছেদ করে।

রম্বসের বৈশিষ্ট্য কি কি

রম্বসের বাহু, রম্বসের কোণ, রম্বসের কর্ণ, রম্বসের ক্ষেত্রফল, রম্বসের কর্ণদ্বয়ের ছেদবিন্দু, রম্বসের পরিসীমা, রম্বসের সন্নিহিত বাহু, রম্বসের সন্নিহিত কোণ ইত্যাদি বিশ্লেষণ করলে কতকগুলো রম্বসের বৈশিষ্ট্য পরিলক্ষিত হয়। রম্বসের সকল গুণাবলী জানার জন্য রম্বস কাকে বলে ও বৈশিষ্ট্য বিস্তারিত আলোচনা প্রয়োজন। নিচে রম্বসের কয়েকটি বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করা হলো।

  1. রম্বসের সবগুলো বাহু পরস্পর সমান।
  2. রম্বসের বিপরীত কোণগুলো পরস্পর সমান।
  3. রম্বসের প্রত্যেক কর্ণ সংশ্লিষ্ট বিপরীত কোণ দুইটিকে সমদ্বিখণ্ডিত করে।
  4. রম্বসের কর্ণদ্বয় পরস্পরকে সমকোণে সমদ্বিখণ্ডিত করে।
  5. রম্বসের কর্ণ দুইটি রম্বসটিকে চারটি সর্বসম ত্রিভুজে বিভক্ত করে।
  6. রম্বসের ভূমিকে উচ্চতা দিয়ে গুণ করলে ক্ষেত্রফল পাওয়া যায়।

উপরোক্ত বৈশিষ্ট্য ছাড়াও আরও অনেক রম্বসের বৈশিষ্ট্য রয়েছে।


রম্বসের উপর বি.সি.এস. সহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক নিয়োগ পরীক্ষায় আসা কয়েকটি প্রশ্ন

প্রশ্ন ১: কোন সামান্তরিকের ৪টি বাহু পরস্পর সমান, কিন্তু কর্ণদ্বয় পরস্পর অসমান। তাকে কি বলে? (প্র.শি, স.চা.)

ক. সামান্তরিক

খ. বর্গক্ষেত্র

গ. রম্বস

ঘ. ট্রাপিজিয়াম

উত্তর: রম্বস

প্রশ্ন ২: যে সামান্তরিকের সকল বাহু সমান কিন্তু কোণগুলো সমান নয়, তাকে বলে- (প্র.শি)

ক. সামান্তরিক

খ. বর্গক্ষেত্র

গ. চতুর্ভুজ

ঘ. রম্বস

উত্তর: রম্বস

প্রশ্ন ৩: একটি রম্বস আঁকতে হলে কমপক্ষে কোন উপাত্তগুলোর প্রয়োজন? (প্র. শি, স.চা.)

ক. দুইটি বিপরীত বাহু

খ. একবাহু ও এককোণ

গ. কর্ণের দৈর্ঘ্য

ঘ. দুইটি বিপরীত কোণ

উত্তর: একবাহু ও এককোণ

প্রশ্ন ৪: রম্বসের কর্ণদ্বয় পরস্পর O বিন্দুতে ছেদ করেছে, কর্ণদ্বয়ের অন্তর্ভুক্ত কোণ- (প্র.শি, স.চা.)

ক. সূক্ষকোণ

খ. সমকোণ

গ. সরলকোণ

ঘ. স্থুলকোণ

উত্তর: সমকোণ

প্রশ্ন ৫: চারটি সমান বাহু দ্বারা সীমাবদ্ধ একটি ক্ষেত্র যার একটি কোণও সমকোণ নয়, এরূপ চিত্রকে বলা হয়- (বিসিএস, স.চা.)

ক. সামান্তরিক

খ. বর্গক্ষেত্র

গ. চতুর্ভুজ

ঘ. রম্বস

উত্তর: রম্বস

প্রশ্ন ৬: একটি আয়তাকার জমির ক্ষেত্রফল ২৪ এয়র। দৈর্ঘ্য ও প্রস্থের অনুাপাত ৩:২ হলে ঐ জমির পরিসীমা কত? (স.চা.)

ক. ১৫০ মিটার

খ. ২৫০ মিটার

গ. ২০০ মিটার

ঘ. ৩০০ মিটার

উত্তর: ২০০ মিটার

প্রশ্ন ৭: কোন ক্ষেত্রগুলোর কর্ণদ্বয় পরস্পরকে সমকোণে সমদ্বিখন্ডিত করে? (স.চা.)

ক. রম্বস ও বর্গক্ষেত্র

খ. আয়তক্ষেত্র ও বর্গক্ষেত্র

গ. রম্বস ও সামান্তরিক

ঘ. সামান্তরকি ও ট্রাপিজিয়াম

উত্তর: রম্বস ও বর্গক্ষেত্র


সচরাচর যেসব প্রশ্ন করা হয়ে থাকে - Frequently Asked Questions (FAQ)

রম্বস কাকে বলে - সংক্রান্ত সচরাচর যেসব প্রশ্নসমূহ মানুষ করে থাকে।

প্রশ্ন ১. রম্বস কি

উত্তরঃ যে চতুর্ভুজের চারটি বাহুর দৈর্ঘ্য পরস্পর সমান তাকে রম্বস বলে। রম্বস একটি সুষম চতুর্ভুজ যার বাহুগুলো পরস্পর সমান। রম্বসের বিপরীত কোণগুলোর পরিমাপ পরস্পর সমান। একটি রম্বসের কোণগুলোর সমষ্টি চার সমকোণ বা ৩৬০°।

প্রশ্নঃ ২. রম্বস কাকে বলে ও বৈশিষ্ট্য

উত্তরঃ যে চতুর্ভুজের চারটি বাহুর দৈর্ঘ্য পরস্পর সমান তাকে রম্বস বলে। রম্বসের সংজ্ঞা ও রম্বস চিত্র বিশ্লেষণ করলে কতকগুলো রম্বসের বৈশিষ্ট্য পরিলক্ষিত হয়। বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যের মধ্যে প্রধান প্রধান রম্বসের কয়েকটি বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করা হলো।

  1. রম্বসের বাহুগুলোর দৈর্ঘ্য পরস্পর সমান।
  2. রম্বসের বিপরীত কোণ দুইটি পরস্পর সমান।
  3. রম্বসের কর্ণ দুইটি পরস্পর অসমান।
  4. রম্বসের কর্ণদ্বয় পরস্পরকে সমকোণে ছেদ করে।
  5. রম্বসের কর্ণ দুইটি পরস্পরকে সমদ্বিখণ্ডিত করে।
প্রশ্নঃ ৩. রম্বসের সংজ্ঞা

উত্তরঃ যে চতুর্ভুজের চারটি বাহুর দৈর্ঘ্য পরস্পর সমান এবং কোনো কোণই সমকোণ নয় তাকে রম্বস বলে।
রম্বসের সন্নিহিত কোণ দুইটির সমষ্টি ১৮০°।
রম্বস একটি সুষম চতুর্ভুজ কারণ এর বাহুগুলোর দৈর্ঘ্য পরস্পর সমান।
রম্বসের কর্ণ দুইটি পরস্পর সমান নয়।
আবার, রম্বসের যেকোনো দুইটি সন্নিহিত কোণ পরস্পর সম্পূরক কোণ।